প্রথম পাতা খবর দিল্লিতে তলব করা হল মুখ্যসচিবকে, কর্মিবর্গ দফতরে আলাপনকে যোগদানের নির্দেশ কেন্দ্রের

দিল্লিতে তলব করা হল মুখ্যসচিবকে, কর্মিবর্গ দফতরে আলাপনকে যোগদানের নির্দেশ কেন্দ্রের

100 views
A+A-
Reset

কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আর্জিতে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেয়াদ বৃদ্ধিতে অনুমতি দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। তার সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই দিল্লিতে তলব করা হল মুখ্যসচিবকে।  মেয়াদ বৃদ্ধিতে সিলমোহর দেওয়ার পরও রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে তাঁর কাজ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে চিঠি এল নবান্নে।


আগামী ১ জুন তাঁকে দিল্লিতে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। দিল্লিতেই তাঁকে দায়িত্ব পালন করতে হবে জানানো হয়েছে চিঠিতে। সঙ্গে রাজ্য সরকারকে আলাপনবাবুকে ছেড়ে দিতে বলা হয়েছে। চিঠি পাঠিয়ে বলা হল, আগামী সোমবার নর্থ ব্লকে কাজে যোগদান করতে হবে আলাপনকে।   


আইএএস অফিসার আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের চাকরির কার্যকাল ছিল ৩১ মে পর্যন্ত। তার পর তাঁর অবসর নেওয়ার কথা। গতবছর অক্টোবরে স্বরাষ্ট্রসচিব থেকে মুখ্যসচিব হয়েছিলেন তিনি। কোভিড পরিস্থিতিতে তাঁর মেয়াদ বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে তিনি লিখেছিলেন,”কোভিড পরিস্থিতি সামলাতে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো দক্ষ অফিসার দরকার। ৬ মাস মেয়াদ বৃদ্ধি করা হোক তাঁর।” মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দেয় কেন্দ্রীয় সরকার। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা জানিয়েছিলেন, ”আমাদের মুখ্যসচিবের মেয়াদ ৩ মাস বাড়ানো হয়েছে।


শুক্রবার কলাইকুণ্ডা বিমানবন্দরে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ক্ষয়ক্ষতি পর্যালোচনা বৈঠকে হাজির থাকার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু কেউই বৈঠকে যোগ দেননি। এর কয়েকঘণ্টার মধ্যে আলাপনবাবুকে দিল্লিতে তলব করল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন: বিধিনিষেধের সুফল মিলছে, রাজ্যে করোনায় দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজারে নামল


কেন্দ্রের তরফে চিঠিতে জানানো হয়েছে ১ জুলাইয়ের মধ্যে নয়া দিল্লির নর্থ ব্লকে কর্মিবর্গ মন্ত্রকে তাঁকে হাজিরা দিতে হবে। গত ২৪ মে-ই তাঁর চাকরির মেয়াদ ৩ মাসের জন্য বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। খোদ কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিলমোহরের কথা সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়েছিলেন মমতা। কিন্তু, তার এক সপ্তাহের মধ্যেই এই নির্দেশ এল কেন্দ্রের পক্ষ থেকে।


বৈঠকে আলাপনবাবুর গরহাজিরা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি। প্রধানমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকে কী করে একজন IAS আধিকারিক কোনও কারণ না দর্শিয়ে গরহাজির থাকতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তারা। 

আরও খবর

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সম্পাদকের পছন্দ

টাটকা খবর

©2023 newsonly24. All rights reserved.