প্রথম পাতা খবর ‘প্রত্যেককে লকডাউনের আইন মেনে চলুন’, বিচারব্যবস্থার উপরে ভরসা রেখে কর্মীদের সংযত থাকার আবেদন অভিষেকের

‘প্রত্যেককে লকডাউনের আইন মেনে চলুন’, বিচারব্যবস্থার উপরে ভরসা রেখে কর্মীদের সংযত থাকার আবেদন অভিষেকের

56 views
A+A-
Reset

কলকাতা: রাজ্যের দুই মন্ত্রী, এক বিধায়ক-সহ চারজনকে সোমবারই গ্রেফতার করেছে সিবিআই । সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্র ও শোভন চট্টোপাধ্যায় গ্রেফতারির পর রণক্ষেত্রের চেহারার নেয় সিবিআইয়ের দফতর নিজাম প্যালেস চত্বর। এই অবস্থায় বিচারব্যবস্থার উপরে ভরসা রেখে কর্মীদের সংযত থাকার আবেদন করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, ‘প্রত্যেককে লকডাউনের আইন মেনে চলার আর্জি জানাচ্ছি। বাংলার মানুষের বৃহত্তর স্বার্থে এমন কোনও কাজ থেকে বিরত থাকুন যা লকডাউনের বিধিনিষেধ ভঙ্গ করে। বিচারব্যবস্থায় আমাদের সম্পূর্ণ আস্থা আছে এবং আইনি পথে আমরা এই লড়াই করব’।


প্রসঙ্গত রাজ্যের দুই মন্ত্রী, এক বিধায়ক ও এক প্রাক্তন মন্ত্রীকে সিবিআই শুকালে গ্রেফতার করার পর রাজ্যে তৃণমূল কর্মীরা বিক্ষোভ দেখতে শুরু করে। নিজাম প্যালেস, রাজভবন ইত্যাদি জায়গায় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন। এই কাজ করার থেকে কর্মীদের বিরত থাকতে আবেদন জানান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এই পরিস্থিতিতে অভিষেকের সংযত থাকার বার্তা তাৎপর্যপূর্ণ বলে মত রাজনৈতিক মহলের।         

আরও পড়ুন: ‘রাজ্যের আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ রাজ্য ও কলকাতা পুলিশ’, টুইট রাজ্যপালের


একইসঙ্গে রাজ্যের বিধায়কদের বিধানসভার অধ্যক্ষের অনুমতি ছাড়াই গ্রেফতারি নিয়ে টুইটারে সরব হন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। কেন্দ্রের দ্বারা সিবিআই প্রভাবিত বলে অভিযোগ করেন তিনি। অমিত মিত্র লেখেন, ‘বাংলার দুই মন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হল অথচ প্রোটোকল মেনে বিধানসভার অধ্যক্ষের কোনও অনুমতি নেওয়া হল না। বাংলার মানুষ বাতিল করায় এই রাজনৈতিক প্রতিহিংসা।

আরও খবর

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সম্পাদকের পছন্দ

টাটকা খবর

©2023 newsonly24. All rights reserved.