প্রথম পাতা খবর ‘দুয়ারে সরকার’-‘স্বাস্থ্যসাথী’-র বেনজির সাফল্য, মমতার ট্রাম্প কার্ডে দিশেহারা বিজেপি

‘দুয়ারে সরকার’-‘স্বাস্থ্যসাথী’-র বেনজির সাফল্য, মমতার ট্রাম্প কার্ডে দিশেহারা বিজেপি

290 views
A+A-
Reset

ওয়েবডেস্ক : তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, শুধু পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীই নন, জননেত্রীও বটে। রাজ্যবাসীর মন পাওয়ার সেরা উপায় যে তাঁদের অভাব অভিযোগ দূর করা, তা খুব ভাল করেই জানেন জননেত্রী মমতা। একুশের আগে তাই এমন দুটি প্রকল্প তিনি নিয়ে এসেছেন, যা কিনা রীতিমতো গেম চেঞ্জার হয়ে যেতে পারে।

আর সেটা অনুধাবন করতে পারছে গেরুয়া শিবিরও। সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের আনা দুটি প্রকল্প ‘দুয়ারে সরকার’ এবং ‘স্বাস্থ্যসাথী‘ নিয়ে রীতিমতো উদ্বেগের বাতাবরণ সৃষ্টি হয়েছে গেরুয়া শিবিরে। বিজেপির গ্রাউন্ড রিপোর্টও বলছে, মুখ্যমন্ত্রীর মস্তিস্কপ্রসূত এই দুটি প্রকল্পই সাফল্যের শিখরে।

‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পের মাধ্যমে সরকারি কাজের জটিল প্রক্রিয়া থেকে রাজ্যবাসীকে মুক্তি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। একদিকে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক প্রকল্প যেমন নিমেষে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে, তেমনি কৌশলে শুরু হয়ে গিয়েছে জনসংযোগের কাজটিও।

‘দুয়ারে সরকারে’র প্রতিটি পর্যায়ে সরকারি শিবিরের সামনে জনতার লাইন হার মানাবে বড় বড় রাজনৈতিক সমাবেশকেও হার মানাবে। এই প্রকল্পে উপকৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে কোটির গণ্ডি। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, এই প্রকল্পের ফলে সরকারি কাজের সুবিধা পেতে কোনও জনপ্রতিনিধির মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হচ্ছে না সাধারণ মানুষকে। ফলে দুর্নীতির প্রশ্নই উঠেছে না। সরকারের বিশ্বাসযোগ্যতাও আরও বেড়ে যাচ্ছে।

মুখ্যমন্ত্রীর আরও একটা মাস্টারস্ট্রোক ‘স্বাস্থ্যসাথী’। রাজ্যের প্রতিটি পরিবারকে স্বাস্থ্যবিমার আওতায় আনার এই প্রকল্প যে অভাবনীয় সাড়া ফেলেছে, সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লাইনে দাঁড়িয়ে আর পাঁচজন সাধারণ মানুষের মতো স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড করিয়েছেন। যা প্রকল্পের গ্রহণযোগ্যতা আরও বাড়িয়েছে।

তৃণমূল নেতারা বলছেন, রাজ্যে এখন স্বাস্থ্য, শিক্ষা, অন্ন, বাসস্থান সব পরিষেবাই কার্যত বিনামূল্যে পাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। অন্যদিকে রাজনৈতিক মহলের ধারণা, এই কর্মসূচির ফলে যেভাবে সরকারি প্রকল্পের সুফল সাধারণ ভোটাররা হাতেনাতে দেখতে পাচ্ছেন, ভোটে তৃণমূলও তার সুফল পাবে।

‘স্বাস্থ্যসাথী’ এবং ‘দুয়ারে সরকার’ এই দুই প্রকল্পের এই সাফল্য রীতিমতো দিশেহারা করে দিয়েছে বিজেপি শিবিরকে। প্রকাশ্যে এই প্রকল্পকে ততটা পাত্তা দিতে না চাইলেও দলের অন্দরে এ নিয়ে অনেক নেতা চিন্তা ব্যক্ত করেছেন বলেই সূত্রের খবর। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে, সরাসরি এই প্রকল্পের বিরোধিতা না করতে পেরে অপপ্রচারে নেমেছে বিজেপি।

আরও খবর

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সম্পাদকের পছন্দ

টাটকা খবর

©2023 newsonly24. All rights reserved.