প্রথম পাতা খবর আমি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মতো লড়াই করি, আঘাত করলে প্রত্যাঘাত করি, হুঁশিয়ারি মমতার

আমি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মতো লড়াই করি, আঘাত করলে প্রত্যাঘাত করি, হুঁশিয়ারি মমতার

255 views
A+A-
Reset

ডেস্ক: আজ থেকে ফের ম্যারাথন ভোট প্রচারে নেমেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন ফের একবার বিজেপিতে তোপ দাগেন মমতা। তাঁর দাবি, ‘গুজরাতিরা বাংলার শাসন করবে না, বাঙালিরাই করবে। ইঞ্চি ইঞ্চিতে লড়াই করব। বাংলা বাংলা চালাবে। বহিরাগত, গুজরাত বাংলা চালাবে না। কেন ৮টি দফায় নির্বাচন? ২ দফাতেই নির্বাচন হয়ে যায়। কী চায় বিজেপি? চালাকি চলবে না। কোভিড হয়েছে বলে বিজেপি বন্ধ করতে চাইবে। কিন্তু এই চালাকি চলবে না, নির্বাচন যখন শুরু হয়েছে, তখন শেষ করতে হবে। 

এদিন সভায় সুর চড়িয়ে মমতা বিজেপিকে এক প্রকার হুঁশিয়ারির সুরে বলেন, মমতার দাবি, ‘আগামী দিন খেলার মাঠে খেলতে হবে। বিজেপিকে মাঠ খালি করতে হবে। জোড়াফুলে ভোট দিতে হবে। দাঙ্গা করে পদ্মফুলটাকে নষ্ট করে দিয়েছে। ওরা দাঙ্গা করলে আমাদের পাঙ্গা নিতে হবে।


নন্দীগ্রামে নিজের আহত হওয়ার প্রসঙ্গ তুলে বলেন, ইলেকশনের আগে আমার পা টা চোট করে দিল। যাতে আমি বেরোতে না পারি। তাতে কী, মা-বোনেদের দুটো পা দিয়ে আমি যা করার করব। আমি ওই একটা পায়ে যা করে বেড়াচ্ছি না, একটা পায়েই বাংলা জয় করবে, আর দুটো পায়ে তো আগামীদিনে দিল্লি জয়ও করতে হবে।’আমি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মতো লড়াই করি, আঘাত করলে প্রত্যাঘাত করি। 

লকেট তো সারদার গলার লকেট, বিস্ফোরক মমতা


মমতা সভা থেকে সুর চড়িয়ে বলেন, আমি যখন থেকে রাজনীতি করি, তপন দাশগুপ্ত, তপন মজুমদাররা রাজনীতি করে। তাঁরা কিন্তু বিশ্বাসঘাতকতা করে পালিয়ে যায় না। বিজেপির তো এমপি এখন এমএলএ ভোটে দাঁড়িয়েছে। কী করবে জানি না। এরপর কাউন্সিলর ভোটে দাঁড়াবে। তারপর গ্রামপঞ্চায়েত, স্কুল ভোট, খেলার মাঠে দাঁড়াবে। কোনখানে কোনখানে দাঁড়াবে জিজ্ঞাসা করুন। ওদের কীর্তিকলাপ সব জানি। আমাদের দলকে সারদা-নারদা বলে। আর সারদা-নারদার সবচেয়ে কোলের বাচ্চা হচ্ছে এরা।


বাবুল সুপ্রিয় একদিন বলেছিল সারদা হচ্ছে রোজভ্যালির প্রথম রোজ। লকেট তো সারদার গলার লকেট,। লকেট হয়ে ঘুরে বেড়ায়। এদের বিরুদ্ধে কোনও কেস নেই, এরা এমপি হবে, এমএলএ হবে। চুঁচুড়ার সভা থেকে আক্রমণ শানালেন মমতা।


তৃতীয় দফা ভোটের আগে চুঁচুড়া থেকে ফের একবার দলের গদ্দার-মীরজাফরদের আক্রমণ করে তৃণমূলনেত্রী। গদ্দার, মীরজাফররা টাকা নিয়ে পালিয়ে গিয়েছে। বিজেপির লোকাল লোকেদের এরা সম্মান দেয় না। প্রার্থীও করে না। বিজেপি পার্টি যদি ভাল পার্টিই হয়, তা হলে একটা প্রার্থী খুঁজে পেলে না। তুমি তো লোকাল প্রার্থী দাঁড় করাওনি। তুমি দাঁড় করাচ্ছ কাকে। এমপি ইলেকশনেও কলকাতা থেকে এসে দাঁড়াচ্ছে। এমএলএ ইলেকশনেও দাঁড়াচ্ছে। কী করবে! এমএলএ হয়ে গেলে এমপি ছাড়বে তো? আর এমপি, ও তো জিতবে না। ও দাঁড়িয়েছে জাস্ট টাকার জন্য, পার্টির জন্য, আর ওদের পার্টির নিজেদের প্রার্থী নেই। সিপিএম কিংবা তৃণমূল থেকে ধার করা।

আগামীদিন ইংরাজি মিডিয়াম স্কুল করব, ডবল ডবল শিক্ষক থাকবে

রাজ্যের উন্নয়নের ক্ষতিয়ান তুলে বলেন, এখানে সমবায়ের মধ্যে দিয়ে চাষ করি। ভাঙর বাংলায় মডেল। এক নম্বর শস্য উৎপন্ন হয় ভাঙরে। কারণ, ভাঙরে এই মডেল আমরা তৈরি করেছি। ২৫ হাজার কোটি টাকা দেব, সেলফ হেলফ গ্রুপ তৈরি করবেন মা বোনেরা। নিজের পরনে শাড়ি দেখিয়ে মমতা বলেন এই যে শাড়িটা পরে আছি, লেখা আছে ‘আ’। ডিজাইন আমার, তাঁতিরা বানান। ওরা খুব খুশি।


ভাঙরে ৬০ শতাংশ বাড়িতে প্রায় জল পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেক বাড়িতে আর্সেনিক মুক্ত পানীয় জল যাবে। আগামিদিনে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল হবে ভাঙরে। তাছাড়া ভাঙরের লোকজনের তো পোয়া বারো। বানতলা যা হয়েছে। ৫ লক্ষ ছেলেমেয়ের কাজ হয়েছে।


কাজের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন,বানতলাতে ২.৫ লক্ষ চাকরি হয়েছে। আরও ২.৫ লক্ষ চাকরি হবে। বললেন মমতা।  তামিলনাড়ু, উত্তর প্রদেশ থেকে চলে আসছে শিল্প হবে বলে। আপনাদের ছেলে মেয়েদের চাকরি পেতে কোনও অসুবিধা নেই। শুধু এলাকা ভাল রাখতে হবে, এলাকা সুন্দর রাখতে হবে। জোরজার করা চলবে না। যারা কাজকর্ম করছে তাদের সাথে নিয়ে বন্ধু ভেবে কাজ করতে হবে। তবেই কিন্তু চাকরিগুলো হবে।

আরও খবর

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সম্পাদকের পছন্দ

টাটকা খবর

©2023 newsonly24. All rights reserved.